প্রণব মুখোপাধ্যায়ের শেষকৃত্য সম্পন্ন

রংপুর

প্রতিদিনের ডেস্ক.

পূর্ণ সামরিক মর্যাদায় ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়ের শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়েছে। কোভিড-১৯ প্রোটোকলের কারণে তার মরদেহ সামরিক সাঁজোয়া গাড়ির বদলে ভ্যানে করে নেওয়া হয়। লোদী রোড মহাশ্মশানে তার শেষকৃত্য হয়। এর আগে গতকাল মঙ্গলবার সকালে দিল্লির রাজাজি মার্গে তার বাসভবনে রাখা হয়েছিল তার মরদেহ। তাকে শেষ শ্রদ্ধা জাানান রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ ও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। খবর এনডিটিভির রাজাজি রোডে প্রণব মুখোপাধ্যায়ের বাসভবনে শ্রদ্ধা জানানোর জন্য রাখা হয় তার একটি ছবি। সেই ছবিতেই ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান সবাই। রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী ছাড়াও সাবেক রাষ্ট্রপতিকে শ্রদ্ধা জানান উপ রাষ্ট্রপতি বেঙ্কাইয়া নায়ডু, প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংহ, লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লা, চিফ অব ডিফেন্স স্টাফ বিপিন রাওয়াত, সস্ত্রীক সাবেক প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংহ, কংগ্রেসের লোকসভার দলনেতা অধীর চৌধুরী, কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গান্ধী, দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালসহ বিভিন্ন দলের নেতাকর্মী ও সর্বস্তরের মানুষ। এক বিবৃতিতে ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, প্রণব মুখোপাধ্যায়ের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে ৩১ আগস্ট থেকে ৬ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত রাষ্ট্রীয় শোক পালন করা হবে। এ সময় পতাকা অর্ধনমিত রাখা হবে এবং আনুষ্ঠানিকভাবে কোনো বিনোদনমূলক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা যাবে না। গত ৯ আগস্ট রাতে দিল্লির বাসভবনে পড়ে গিয়ে মাথায় আঘাত পান তিনি। পরদিন চিকিৎসকের পরামর্শে দিল্লির আর্মি হসপিটাল রিসার্চ অ্যান্ড রেফারেলে ভর্তি করা হয় তাকে। জরুরি ভিত্তিতে অস্ত্রোপচার করা হয় তার। অস্ত্রোপচারের প্রস্তুতি পর্বে প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্য পরীক্ষা করতে গিয়ে প্রণব মুখোপাধ্যায়ের দেহে করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব ধরা পড়ে। অস্ত্রোপচারের পর অবস্থার অবনতি হলে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের নিয়ে তৈরি মেডিকেল বোর্ডের অধীনে তাকে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে ভেন্টিলেশনে রাখা হয়। প্রায় তিন সপ্তাহ চিকিৎসাধীন থাকার পর গত সোমবার তার মৃত্যু হয়।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *